অনিন্দ্যবাংলা ডেক্স : মশা নির্মূলে সবাই সচেতন হলে, ডেঙ্গু-চিকনগুনিয়া যাবে চলে-
এই প্রতিপাদ্য বিষয়কে সামনে রেখে ডেঙ্গু-চিকনগুনিয়া প্রতিরোধে আজ বিকাল ৫টায় স্থানীয় পৌরসুপার মার্কেটের সামনে ময়মনসিংহ পৌরসভার মাসব্যাপী মশকনিধন অভিযান ২০০৮ এর শুভ উদ্বোধন করেন মেয়র ইকরামুল হক টিটু।
 
ব্যটারীচালিত মশকনিধন যন্ত্রের পাশাপাশি মশার লার্ভা ধ্বংসকারী নতুন ২৩টি ফগার মেশিন সংযোজন করে সমন্বিত মশকনিধন অভিযান উদ্বোধনকালে মেয়র ইকরামূল হক টিটু বলেন, সারাদেশে জিকা-ডেঙ্গু-চিকনগুনিয়া এখন মরণব্যাধী হিসেবে পরিগণিত। ময়মনসিংহ শহরে যদিও এর কোন প্রাদূর্ভাব নেই তবুও আগাম সতর্কতা হিসেবে ময়মনসিংহ পৌরসভা জিকা, ম্যালেরিয়া ও ডেঙ্গু-চিকনগুনিয়া প্রতিরোধে মাসব্যাপী মশকনিধন অভিযান শুরু করলো। ময়মনসিংহ পৌরসভা মশক নিধনের রুটিনমাফিক কার্যক্রমের পাশাপাশি প্রতিমাসে বিশেষ অভিযান পরিচালনা করবে।
 
মশকনিধন বিষয়ে তিনি আরো বলেন, মশা নিয়ন্ত্রণে প্রতিটি নাগরিককে সম্পূর্ণভাবে সচেতন হতে হবে। যেখানে সেখানে ময়লা-আবর্জনা ফেলা থেকে বিরত থাকতে হবে। প্রত্যেকের ঘরবাড়ী-আঙ্গিণাসহ পানি জমে এমন স্থান, ফুল ও ফল গাছের টব, উন্মুক্ত পানির ট্যাংকী, বেসিনের নীচের অংশ, খাট-পালংসহ আসবাবপত্রের নীচ সব পরিষ্কার রাখতে হবে। পাশাপাশি শোয়ার সময় মশারী খাটাতে হবে, শিক্ষার্থীদের পড়ার সময় কয়েল জ্বালাতে হবে।
 
এখন একটাই শ্লোগান, পরিবেশ পরিচ্ছন্ন রাখি, মশা থেকে দূরে থাকি।
 
অভিযান উদ্বোধনের সময় উপস্থিত ছিলেন, ময়মনসিংহ জেলা নাগরিক আন্দোলনের সাধারণ সম্পাদক ইঞ্জিনিয়ার নুরুল আমীন কালাম, পৌর স্যানিটারি ইন্সপেক্টর দীপক মজুমদার, মেডিকেল অফিসার ডা: এইচ, কে, দেবনাথ, পরিচ্ছন্নতা পরিদর্শক মোহাম্মদ আলী, দৈনিক শ্বাশত বাংলার সম্পাদক আজগর হোসেন রবিন, ফটো সাংবাদিক এম এ মিল্লাতসহ গণমাধ্যমের বিভিন্ন প্রতিনিধি।
 
ফটো : শেখ অনিন্দ্যমিন্টু