anindabangla

৩০শে জুলাই, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ , শুক্রবার , ১৫ই শ্রাবণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ


জামালপুর প্রতিনিধি :  জামালপুরের বকশীগঞ্জ সীমান্তে সুমন মিয়া (২০) নামে ভারতীয় এক নাগরিককে আটক করেছে স্থানীয়রা। আটকের ১৬ ঘন্টা পর ভারতীয় ওই যুবককে ইউপি চেয়ারম্যানের তত্ত্বাবধান থেকে নিজেদের হেফাজতে নিয়েছে বকশীগঞ্জ থানা পুলিশ। বর্তমানে তাকে কোয়ারেন্টাইনে রাখা হয়েছে।
সোমবার (১৪ জুন) রাত ১০টার দিকে বকশীগঞ্জের কামালপুর সীমান্ত এলাকা থেকে ভারতীয় ওই যুবককে আটক করা হয়। তার বাড়ি জলপাইগুড়ি জেলার সদর থানার এসপসকারা গ্রামে। তিনি ওই গ্রামের তালেব মিয়ার ছেলে।
ভারতীয় ওই নাগরিকের আটক নিয়ে পুলিশের পক্ষ থেকে বলা হয়েছিল যে, এটি সীমান্তের বিষয়। যদি বিজিবি তাকে আটক করে থানায় সোপর্দ করে তবে ব্যবস্থা নেয়া হবে। অপরদিকে বিজিবির পক্ষ থেকে বলা হয়েছিল, বাংলাদেশের অভ্যন্তর থেকে ভারতীয় ওই নাগরিককে আটক করেছে স্থানীয়রা। সে কারণে পুলিশই দেখবে বিষয়টি। অবশেষে মঙ্গলবার (১৫ জুন) দুপুর আড়াইটার দিকে তাকে বকশীগঞ্জ থানার হেফাজতে নেয় পুলিশ।
স্থানীয় সূত্র জানায়, সোমবার রাত ১০ টায় সীমান্তে অপরিচিত এক যুবককে ঘোরাফেরা করতে দেখলে লোকজনের সন্দেহ হয়। তাকে আটক করে জিজ্ঞাসাবাদে জানা যায় যে, যুবকটি ভারতীয় নাগরিক। পরে তাকে বিজিবির বিওপি ক্যাম্পে নিয়ে যাওয়া হয়। বিজিবির পক্ষ থেকে ভারতীয় ওই যুবককে গ্রহণ করা না হলে কামালপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মোস্তুফা কামালের তত্ত্বাবধানে তাকে রাখা হয়।
জামালপুর বিজিবির কমান্ডিং অফিসার (সিও) লে. কর্নেল মুনতাসির জানান, যেহেতু বাংলাদেশের অভ্যন্তর থেকে ভারতীয় ওই যুবককে আটক করেছে স্থানীয়রা, সেহেতু বিষয়টি পুলিশের।
বকশীগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শফিকুল ইসলাম সম্রাট জানান, দুপুরে ভারতীয় ওই যুবককে থানা হেফাজতে নেয়া হয়েছে। তার করোনা পরীক্ষার জন্য নমুনা সংগ্রহ করে স্বাস্থ্য বিভাগে পাঠানো হয়েছে। তাকে বর্তমানে কোয়ারেন্টাইনে রাখা হয়েছে।





দেশ প্রপার্টিজ

করোনায় মানবিক সাহায্য দিন

রুমা বেকারী

করোনা ভাইরাস নিয়ে সতর্কীকরণ

নিত্যদিন বা উৎসবে,পছন্দের ফ্যাশন

ময়মনসিংহ সিটি কর্পোরেশন

Top
Top