anindabangla

১৯শে অক্টোবর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ , মঙ্গলবার , ৩রা কার্তিক, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ


জামালপুর  প্রতিনিধি :  লালু নদী পাড়ের ঢোলক বাদক। তার ঢোলের শব্দে আর তালে উন্মাতাল হয় নদী পাড়ের মানুষ। নদী নৌকা এবং নৌকার গলুই। সেই গলুই থেকেই সিনেমাে মূল পরিকল্পনা গ্রহণ করেছেন। শুটিং  শেষে যে কোনে একটি বিশেষ অনুষ্ঠানে মুক্তি পাবে এ গলুই সিনেমাটি।
নৌকা বাইচ ও একজন মাঝির জীবন জীবিকা ও প্রেম ভালোবাসা এবং সমাজের পটভূমি নিয়ে  ‘গলুই’ সিনেমার শুটিং চলছে জামালপুরে প্রন্তত অঞ্চলে। এ ছবিতে একজন মাঝির চরিত্রে অভিনয় করছেন বাংলার সুপারস্টার শাকিব খান। তার সাথে যুক্ত হয়েছেন নায়িকা পুজা চেরি। পুজা চেরি এর আগে টাঙ্গাইলে অন্য শিল্পীদের সাথে শুটিং শেষ করে জামালপুর জেলার মাদারগঞ্জ জামথল ঘাটে যোগ দিয়েছেন শাকিবের সাথে। মাদারগঞ্জ উপজেলার জামথল সরঘাট এলাকায় হচ্ছে চিত্রায়ন। শাকিবের শুটিংয়ের খবর শুনে ওই এলাকায় জনস্রোত নেমেছে। যার কারণে শুটিং করতেও বেশ বেগ পেতে হচ্ছে তাদের।
হাজার হাজার মানুষের উপস্হিতি ও আগ্রহ দেখে মনে হয়েছে  বাংলাদেশ চলচ্চিত্রের প্রতি মানুষের আগ্রহ বিন্দুমাত্র কমেনি। সুষ্ঠু পরিকল্পনা, মৌলিক নির্মান ও যথাযথ কর্তৃপক্ষের পৃষ্ঠপোষকতা পেলে এ শিল্পটি তার হারানো গৌরব ফিরে পেতে পারে। শৈল্পিক নির্মাতা এসএ হক অলিকের গলুই মুভির শুটিং প্রত্যেক্ষে তাই মনে করছেন সাধারণ দর্শকস্রোতা। সে কারণে আশ্বিনের তপ্ত তাপদহে পুড়ে অঙ্গার হলেও বাংলার সুপারস্টার শাকিব খানকে একটি বার দেখার জন্য প্রতিদিনই ভীড় জমাচ্ছে দর্শকরা।
লালু মাঝির ছেলে ঢোলক বাদক। লালু চরিত্রে শাকিব অভিনয় করছেন। লালু হলো গ্রামের সহজ-সরল যুবক। তার বিপরীতে মালা চরিত্রে আছেন পূজা চেরি। এছড়াও অভিনয় করছেন আজিজুল হাকিম ও ফজলুর রহমান বাবুর মতো নন্দিত অভিনয়শিল্পীরা।
সিনেমার বাজেটের অংকটি নির্দিষ্ট করে না বললেও শাকিবের পারিশ্রমিকের কথা বলেছেন প্রযোজক খসরু। তিনি বলেন, ‘সম্পর্কসহ অনেক বিষয়ের ওপর নির্ভর করে পারিশ্রমিকের ব্যাপারটা। এ সিনেমায় শাকিবকে আমরা ৪০ লাখ টাকা পারিশ্রমিক দিচ্ছি। সরকারি অনুদানপ্রাপ্ত সিনেমাটি ২০২০-২১ অর্থ বছরে ৬০ লাখ টাকা অনুদান পেয়েছে। পুরো সিনেমাটি শেষ করকে দেড় কোটি টাকা খরচ হবে। বাকী টাকা তারা নিজেরাই দেবেন।
জামালপুরের মাদারগঞ্জ উপজেলার জামথল সদরঘাট এলাকায় সিনেমার শুটিং করছেন। ‘গলুই’ সিনেমার শুটিং হচ্ছে জামালপুরের মাদারগঞ্জে জামথল ঘাটে । গত ২৮ সেপ্টেম্বর থেকে শাকিব অংশ নিচ্ছেন শুটিংয়ে।
এদিকে ‘গলুই’ সিনেমায় ‘মেগাস্টার’ শাকিব খানের নতুন ফিটনেস, লুক নিয়ে ভক্ত-শুভাকাঙ্খীদের মনে ধরেছে। তাই নতুন একটি লুক প্রকাশের সাথে সাথে ভাইরাল হয়েছে নেট দুনিয়ায়। শাকিব গ্রামের এক মাঝির ভূমিকায় অভিনয় করছেন শাকিব। যার নাম লালু। চরিত্রটির জন্য তিনি নিজের ফিটনেস এবং সাজসজ্জায় ব্যাপক পরিবর্তন এনেছেন। একাধিক স্থিরচিত্র ও একটি ভিডিও ফুটেজে পাওয়া গেল ব্যতিক্রম শাকিবকে। গায়ে ফতুয়া,পরনে লুঙ্গি, গলায় গামছা। ক্লিন শেভড মুখ,মাথার চুলও ছেঁটেছেন ছোট করে। স্টাইলিশ শাকিবের সঙ্গে এ শাকিবের পার্থক্য অনেকখানি। চরিত্রের জন্য এমন পরিবর্তন তার ভক্তদের মনে ছড়িয়ে দিয়েছে আনন্দের রেশ। ফেসবুকভিত্তিক গ্রুপগুলোতে চলছে আলোচনা-প্রশংসা।
সুপারটার শাকিব খান তার জনপ্রিয়তা ও জনগণের ভালোবাসায় আবেগ আপ্লুত হয়ে পড়েছেন। তিনি জানান, তার শুটিংয়ে কথা শুনে জামালপুর জেলাসহ নদীর ওপার গাইবান্ধা, কাজীপুর ও সিরাজগঞ্জ থেকে নৌকা ও ট্রলার নিয়ে ভীড় করছেন শুটিং স্পটে। ফলে লাখো মানুষের ভীগ সামলিয়ে শুটিং চলছে জেলার বিভিন্ন পয়েটে।
অপরদিকে নায়িকা পুজা চেরির অভিমত ব্যক্ত করে বলেন, ছোট বেলা থেকেই চেয়েছিলেন তিনি যখন শুটিং করবেন তখন মানুষ দেখবে। এ দিকটি পজেটিভ হলে নেগেটিভ দিকে শুটিংয়ের বিষয়টিও দেখতে হবে। সব কিছু বিবেচনা করে কাজ করতে হয়। আশা করছি সফলভাবেই শুটিং শেষ হবে।





দেশ প্রপার্টিজ

করোনায় মানবিক সাহায্য দিন

রুমা বেকারী

করোনা ভাইরাস নিয়ে সতর্কীকরণ

নিত্যদিন বা উৎসবে,পছন্দের ফ্যাশন

ময়মনসিংহ সিটি কর্পোরেশন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Top
Top