[google-translator]
আবহাওয়া:
anindabangla

২৩শে এপ্রিল, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ , শুক্রবার , ১০ই বৈশাখ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

শিরোনাম

অনিন্দ্যবাংলা ডেস্ক: অরিক্স বায়োটেক প্ল্যান্টের মাধ্যমে বাংলাদেশ প্লাজমা প্রযুক্তির যুগে প্রবেশ করেছে বলে জানিয়েছেন তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি (আইসিটি) প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক। এর মধ্য দিয়ে রক্তের প্লাজমা বিশ্লেষণ করে জীবন রক্ষাকারী ওষুধ প্রস্তুত করার পথ সুগম হলো বলেও মন্তব্য প্রতিমন্ত্রীর।

সোমবার (১ মার্চ) গাজীপুরের কালিয়াকৈরে অবস্থিত বঙ্গবন্ধু হাইটেক পার্কে এই প্ল্যান্টের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন কাজের উদ্বোধন করা হয়।

আইসিটি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে চায়নাভিত্তিক বহুজাতিক কোম্পানি ‘অরিক্স বায়োটেক প্লাজমা ফ্রাকশানেশন প্ল্যান্ট’ এর ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন কার্যক্রম উদ্বোধন করেন।

জানা যায়, অরিক্স বায়োটেক এই খাতে ৩০০ বিলিয়ন ডলার বিনিয়োগ করছে। বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি সংশ্লিষ্ট  প্রায় দুই হাজার লোকের কর্মসংস্থান হবে এবং এ খাতসংশ্লিষ্ট প্রায় এক হাজার কোটি টাকার আমদানি বন্ধ হবে বলে আশাবাদ সংশ্লিষ্টদের।

উদ্বোধনকালে আইসিটি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক বলেন, অরিক্সের বায়োটেক প্ল্যান্ট স্থাপন একটি সময়োপযোগী পদক্ষেপ। এর মাধ্যমে বাংলাদেশ বায়োটেক প্লাজমা প্রযুক্তির যুগে প্রবেশ করলো এবং রক্তের প্লাজমা বিশ্লেষণ করে জীবন রক্ষাকারী ওষুধ প্রস্তুত করার পথও সুগম হলো।

সাম্প্রতিক সময়ে করোনা মোকাবিলায় সরকারের গৃহীত বিভিন্ন পদক্ষেপ তুলে ধরে পলক বলেন, ডিজিটাল বাংলাদেশের প্ল্যাটফর্ম ব্যবহার এবং প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার দূরদর্শী নেতৃত্বের কারণেই করোনা মোকাবিলায় বাংলাদেশ সফল হয়েছে। প্রধানমন্ত্রী করোনা মহামারি মোকাবিলায় প্রয়োজনে লকডাউন দিয়েও তুলেনিয়ে জীবন-জীবিকা দুটোই সমন্বয় করেছেন। সুরক্ষা ম্যানেজমেন্ট ভেক্সিনেশন কার্যক্রম সারা বিশ্বে প্রশংসিত হয়েছে।

তিনি বায়োটেকনোলজির সফল বাস্তবায়নের মাধ্যমে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার জ্ঞানভিত্তিক ও তথ্যপ্রযুক্তিনির্ভর বাংলাদেশ গঠনে সকলকে এগিয়ে আসার আহ্বান জানান।





Top