anindabangla

১৬ই জুন, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ , বুধবার , ২রা আষাঢ়, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

শিরোনাম

অনিন্দ্যবাংলা ডেস্ক ঃ চেহারা যাতে সহজে বুড়িয়ে না যায়, তার জন্য বিশাল কিছু চেষ্টা করতে হয় তা কিন্তু নয়। রূপচর্চার খুব সাধারণ কয়েকটা নিয়ম মেনে চললেই দেখবেন দীর্ঘদিন পর্যন্ত সৌন্দর্যের দীপ্তি বজায় থাকবে।
বয়সের ছাপ আমাদের প্রত্যেকের চেহারাতেই পড়ে। বয়স যত বাড়তে থাকে, চেহারায় তার প্রভাব এড়ানো যায় না। তবে কারোর কারোর চেহারায় বয়সের ছাপ তাড়াতাড়ি পড়ে, আবার কেউ চল্লিশেও কুড়ির গ্ল্যামার ধরে রাখেন।
অল্প বয়সে খুব একাটা চেহারার যত্ন নেওয়ার প্রয়োজন পড়ে না। কিন্তু বয়স ৩০-এর ঘরে পৌঁছলেই নিজের খেয়াল রাখার প্রয়োজনীয়তা বেড়ে যায়। এই সময় মহিলারা কর্মরত হোন বা গৃহবধূ, অত্যন্ত ব্যস্ত থাকেন। অফিস, ঘর সবমিলিয়ে নিজেদের দিকে নজর দেওয়ার সময় খুব একটা পাওয়া যায় না। তাই খুব সহজ কয়েকটা বিউটি টিপস দিলাম আমরা। এগুলো মেনে চলতে পারলেই কেল্লাফতে।

* এই বয়সে ত্বকের স্বাভাবিক আর্দ্রতা এমনিতেই কমে যায়। তাই ফেস ওয়াশ ত্বকের ওপর কড়া হতে পারে। মুখ পরিষ্কার করতে হালকা কোনও ক্লিনজার ব্যবহার করাই ভালো।

* শুধু ময়শ্চারাইজার নয়, ত্বকে লাগান স্কিন সিরাম। ভিটামিন সি আছে এরকম সিরাম বেছে নিন। এটি ওপেন পোর এবং পিগমেন্টেশনের হাত থেকে আপনাকে রক্ষা করবে।

* এই বয়সে খুব সম্ভবত আপনি সদ্য মা হয়েছেন। মা হওয়ার পর মহিলাদের ত্বক শুষ্ক হয়ে যায়। ত্বকের পিএইচ ব্যালান্স ঠিক রাখতে বিনা অ্যালকোহলের টোনার বেছে নিন।

* রাতে আমাদের সঙ্গে আমাদের ত্বকও ঘুমোয়। এই সময় ত্বকের পুষ্টি জোগানো প্রয়োজন। তাই রাতে শোওয়ার আগে ভালো কোনও নাইট ক্রিম অবশ্যই ব্যবহার করুন।

* বয়স ৩০-এর কোঠায় পৌঁছনর পরই চোখের চারপাশের চামড়া ঢিলে হতে শুরু করে। এই সময় চোখের নীচে প্রথম বলিরেখা পড়তে শুরু করে। তাই আন্ডার ক্রিম ব্যবহার করতে ভুলবেন না।

* স্কিনকেয়ার রুটিনের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ অঙ্গ হল সানস্ক্রিন। ক্ষতিকর সূর্যালোক ত্বকের বারোটা বাজিয়ে দেয়। তাই দিনের বেলা অবশ্যই সানস্ক্রিন লাগাবেন।





© কপিরাইট © সর্বস্বত্ব অনিন্দ্যবাংলা কর্তৃক সংরক্ষিত ২০০০-২০২০ | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।
Top