anindabangla

১৬ই জুন, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ , বুধবার , ২রা আষাঢ়, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

শিরোনাম

সত্যি তুমি, মহান তুমি,খেল যে লুকোচুরি,
খুঁজে খুঁজে হয়রান তবুও তোমার নেইতো কোন জুড়ি।
তবুও মহান খুঁজেছি তোমায় ধরণীর জলে,
স্থলে, আকাশের পানে চেয়ে থাকি শুধু আকাশ কি কিছু বলে?
তবুও কি তুমি দেবেনা দেখা?
আর কতকাল থাকব যে একা?
সত্যি তুমি, ভক্তি তুমি,তুমিই অন্তরযামী,
তোমার স্মরণ এই ধরণীতে সবচেয়ে বেশি দামী।
লুকিয়ে তুমি থেকো নাতো একা,
দিবে কি মহান আমাকে দেখা?
তোমার শোকে কেঁদে কেঁদে মহান চক্ষু হয়েছে অন্ধ,
তবুও তোমায় খুঁজেছি মহান চক্ষু করিয়া বন্ধ।
তবু্ও তুমি দেখা কি দিবেনা ওগো আমার মহান?
মনে মনে শুধু গুণগুণিয়ে গাই সদাই তোমার গান।
এন্টার্কটিকার বরফে তোমায় খুঁজেছি বহুকাল,
শীতের প্রবল দাপট সয়েছি তবুও ছাড়িনি হাল।
মরুর বুকে খুঁজেছি তোমায় তপ্ত বালুর বুকে,
খুঁজে খুঁজে ক্লান্ত হয়ে মেতেছি আবার সুখে।
বৃক্ষশাখায় খুঁজেছি তোমায় হাজারো পাখির মাঝে,
তবুও তুমি দাওনি দেখা আমি যে মরেছি লাজে।
এখনো আমি দিবা-নিশি খুঁজি তোমায় আকাশ পানে,
হৃদয় আমার মেতেছে আজি মিষ্টি মধুর গানে।
নীড়ে ফেরা ক্লান্ত পাখিরা জানেনা তোমার ঠিকানা,
তাঁরাও তোমায় দেখেনি মহান তাদেরও তুমি অজানা।
আকাশের নীলে খুঁজেছি তোমায় পবনকে সাথী করে,
সন্ধ্যাকালে বলাকার সাথে ফিরেছি আপন নীড়ে।
তবুও তোমার পাইনিতো দেখা পাইনিতো কোন খোঁজ,
তবুও মহান খুঁজছি তোমায় প্রতিদিন প্রতিরোজ।
ভোরের সূর্যকে প্রশ্ন করেছি কোথায় মহানের বাড়ি?
রাতের তারকার সঙ্গে দিয়েছি মহানের খুঁজে আড়ি।
তবুও আজো পাইনি ঠিকানা পাইনি খুঁজিয়া বাড়ি
প্রতিটি মানব হৃদয়ে বাজে মহান সংগীত তাঁরই।
সব জায়গায় বিরাজমান তুমি কেন যে দাওনা দেখা?
সত্যিই আমার মহান বন্ধু আমি যে বড়ই একা। 





© কপিরাইট © সর্বস্বত্ব অনিন্দ্যবাংলা কর্তৃক সংরক্ষিত ২০০০-২০২০ | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।
Top