anindabangla

৩০শে জুলাই, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ , শুক্রবার , ১৫ই শ্রাবণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ


মহাকাশ বিষয়ক রিপোর্টার :  মঙ্গল গ্রহের পর এবার সৌরজগতের আরেক গ্রহ শুক্রে অভিযান চালানোর ঘোষণা দিয়েছে মার্কিন মহাকাশ গবেষণা সংস্থা নাসা। ২০২৮ এবং ২০৩০ সালের মধ্যে গ্রহটির জলবায়ু এবং ভূতাত্ত্বিক গঠন খতিয়ে দেখতে অভিযান দুটি পরিচালনা করা হবে। বুধবার নাসার প্রশাসক বিল নেলসন জানান প্রতিটি অভিযান পরিচালনার জন্য ৫০ কোটি ডলার ব্যয় করা হবে। কাতারভিত্তিক সংবাদমাধ্যম আল জাজিরার প্রতিবেদন থেকে এসব তথ্য জানা গেছে।

পৃথিবীর নিকটতম প্রতিবেশি গ্রহ শুক্র। সূর্য থেকে এর অবস্থান দ্বিতীয়। পৃথিবীর মতো শুক্র একই গঠনের তবে আকারে কিছুটা ছোট। গ্রহটির ব্যাস প্রায় ১২ হাজার কিলোমিটার। শুক্রে সর্বশেষ অভিযান পরিচালিত হয়েছিল ১৯৯০ সালে। সেই অভিযানে নাসার পাঠানো নভোযানটির নাম ছিলো ম্যাগেলান। নাসার প্রশাসক বিল নেলসন বলেন, ‘গত ৩০ বছরেরও বেশি সময় ধরে শুক্রে কোনো অভিযান চালানো হয়নি। নাসা মনে করছে, এখন আমাদের সামনে সুযোগ রয়েছে এই গ্রহটির ব্যাপারে যথাযথ অনুসন্ধান করার।’

প্রথম ধাপের অভিযানটির নাম দেওয়া হয়েছে ডাভিনকি প্লাস। এই অভিযানে গ্রহটির বাহ্যিক পরিবেশ সংক্রান্ত তথ্য সংগ্রহ ও পর্যালোচনার পাশাপাশি পরিবেশের সৃষ্টি ও বিবর্তন সংক্রান্ত তথ্যও সংগ্রহের চেষ্টা করা হবে। এর সঙ্গে এও অনুসন্ধান করা হবে যে, গ্রহটিতে কখনও সমুদ্র বা পানির অন্য কোনো উৎস ছিল কি না। দ্বিতীয় অভিযানের ভেরিতাস। এই ধাপে শুক্রের ভূমিরূপ বা ভূতাত্ত্বিক অবস্থা বিষয়ক তথ্য সংগ্রহ করা হবে।

পৃথিবীর বোন বলে পরিচিত শুক্র সৌরজগতের উষ্ণতম গ্রহ। এর উপরিভাগের তাপমাত্রা ৫০০ ডিগ্রি সেলসিয়াস। এই পরিমাণ তাপে অনায়াসে সীসা গলে যায়। এই পরিমাণ তাপ ও গ্রহটির বায়ুমন্ডলে ঘন মেঘ থাকার কারণে শুক্রের অপর নাম ‘মেঘে ঢাকা নরক’।





দেশ প্রপার্টিজ

করোনায় মানবিক সাহায্য দিন

রুমা বেকারী

করোনা ভাইরাস নিয়ে সতর্কীকরণ

নিত্যদিন বা উৎসবে,পছন্দের ফ্যাশন

ময়মনসিংহ সিটি কর্পোরেশন

Top
Top