anindabangla

২৮শে নভেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ , রবিবার , ১৩ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

শিরোনাম

 অনিন্দ্যবাংলা :   গাজীপুরে অস্টম শ্রেণির ভাতিজা কিশোরকে নিয়ে ‘প্রেমের টানে’ ঘর ছেড়েছেন চাচি । ভাতিজার বয়স ১৪, চাচির বয়স ২০ ! শুরুতে প্রেমের টানে চাচির হাত ধরে ওই স্কুলছাত্রের চলে যাওয়ার বিষয়টি নিশ্চিত হওয়া না গেলেও পুলিশ তাদের উদ্ধারের পর বিষয়টি সামনে এসেছে।

ওই স্কুলছাত্র এবার অস্টম শ্রেণিতে ট্যালেন্টপুলে বৃত্তিও পেয়েছে। তার বাড়ি কালীগঞ্জ উপজেলায়। বাবা সৌদি আরব প্রবাসী। দুই ভাই আর এক বোনের মধ্যে সে সবার বড়। চাচির সঙ্গে স্কুলছাত্রের পালিয়ে যাওয়ার এ ঘটনা দুই পরিবারকেই ভাবিয়ে তুলেছে।

থানা ও পরিবার সূত্রে জানা গেছে, গত ২৩ অক্টোবর বাড়ি থেকে নিখোঁজ হয় ওই কিশোর। ২৪ অক্টোবর পরিবারের পক্ষ থেকে থানায় নিখোঁজের সাধারণ ডায়েরি (জিডি) করা হয়। জিডির সূত্র ধরে প্রযুক্তি ব্যবহার করে মোবাইল নম্বর ট্র্যাকিংয়ের মাধ্যমে তাদের ঢাকার নাখালপাড়া এলাকা থেকে উদ্ধার করা হয়। সেখানে তারা একটি ভাড়া বাড়ির সন্ধান করছিলেন।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক স্কুলছাত্রের এক স্বজন জানান, ২০ বছর বয়স্ক ওই নারীর স্বামী গাজীপুরে বিকাশের ব্যবসা করেন। প্রায় বছরখানেক আগে মোবাইল ফোনে এক অপরিচিত ছেলের সঙ্গে সম্পর্ক করে ওই নারী ব্রাহ্মণবাড়িয়ার বাঞ্ছারামপুর চলে যান। পরে সেখানে ওই ছেলেকে না পেয়ে বাড়ি ফিরে আসেন। কিন্তু বছর না ঘুরতেই আবার একটা বাচ্চা ছেলেকে ফুঁসলিয়ে নিয়ে চলে গেলেন।

চাচির সঙ্গে পালিয়ে যাওযা ওই কিশোর জানায়, করোনার সময় পার্শ্ববর্তী চাচির বাড়িতে গিয়ে ওয়াইফাই দিয়ে মোবাইল ফোনে গেম খেলতো সে। এভাবে প্রতিদিন যেতে যেতে চাচি তাকে প্রেমের প্রস্তাব দেন। পরে কিছু না বুঝেই সে রাজি হয়ে যায়। তিন-চার মাসের প্রেম চলে। এর মধ্যে চাচিকে নিয়ে বিভিন্ন স্থানে ঘুরতেও যায় ওই কিশোর।

এ ব্যাপারে কালীগঞ্জ থানার এসআই আমিনুল ইসলাম বলেন, থানায় নিখোঁজের জিডির অনুসন্ধানে গিয়ে তাদের ঢাকার নাখালপাড়া থেকে উদ্ধার করি। প্রাথমিকভাবে তারা স্বীকার করেছে প্রেমের টানেই ঘর ছেড়েছে তারা। তবে এ ঘটনার পর দুইপক্ষের অভিভাবকের কাছে দুইজনকে বুঝিয়ে দেওয়া হয়েছে বলেও জানান পুলিশের এই কর্মকর্তা।





দেশ প্রপার্টিজ

করোনায় মানবিক সাহায্য দিন

রুমা বেকারী

করোনা ভাইরাস নিয়ে সতর্কীকরণ

নিত্যদিন বা উৎসবে,পছন্দের ফ্যাশন

ময়মনসিংহ সিটি কর্পোরেশন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Top
Top